Saturday, February 4, 2023
Homeখবর এখনযারা দুর্নীতি করে চাকরিতে ঢুকেছে তাদের প্রত্যেকের চাকরি যাবে"কড়া বার্তা বিচারপতি গাঙ্গুলীর...

যারা দুর্নীতি করে চাকরিতে ঢুকেছে তাদের প্রত্যেকের চাকরি যাবে”কড়া বার্তা বিচারপতি গাঙ্গুলীর…

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধিঃ যারা দুর্নীতি করে চাকরিতে ঢুকেছে তাদের প্রত্যেকের চাকরি যাবে। এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে এসে এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের  বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। রীতিমতো সুর চড়িয়ে তিনি  বলেন, “যারা দুর্নীতি করে চাকরিতে ঢুকেছে তারা যেন নিশ্চিন্তে না থাকে। দুর্নীতি করে যারা ঢুকেছে, যারা অসৎ উপায়ে চাকরি পেয়েছে, তাদের ধরতে পারলেই প্রত্যেকের চাকরি যাবে।” একইসঙ্গে আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, “যারা দুর্নীতি করে ঢুকেছে তারা বাচ্চাদের কী মূল্যবোধ শেখাবে! টুকতে শেখাবে!”বর্তমানে দুর্নীতির গেরোয় চাকরি না পাওয়ায় বেকার যুবক-যুবতীদের কাছে ‘মসিহা’ হয়ে উঠেছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর নির্দেশেই পুজোর মুখে কয়েক দফায় বহু চাকরিপ্রার্থী চাকরি পেয়েছেন। এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, “বেকারদের চোখের জল আমি দেখতে পাই। আমিও বেকার ছিলাম। তাই বেকার যুবক-যুবতিদের চোখের জল, রাতের পর রাত বেকার যুবক-যুবতিদের চোখের জলে বালিশ ভিজে যাওয়া আমি দেখতে পাই।” এপ্রসঙ্গেই বিচারপতি বলেন, “অন্তত এক-দুটো রায় এমন দিয়ে যেতে চাই, যাতে যখন আমি থাকব না তখন বিচারকদের আলোচনায় সেগুলি উঠে আসবে।”দুর্নীতি রুখতে বিচারব্যবস্থার কড়া হওয়া জরুরি বলে মনে করেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, “ভয় মাঝেমধ্যে ভালো ফল দেয়। শিক্ষা দফতরের আধিকারিক, শিক্ষকদের উপর ভয় সৃষ্টি করেছি। তবে এতে কাজ হয়েছে।” নাগরিকদের উপর বিচারব্যবস্থার সঠিক প্রয়োগ হয়নি বলেই দেশবাসী এত বিশৃঙ্খল বলেও মনে করেন তিনি।শুধু দুর্নীতিগ্রস্ত নয়, বিচার ব্যবস্থার বিরুদ্ধে যাঁরা আঙুল তোলেন, প্রয়োজনে তাঁদের বিরুদ্ধেও তিনি কঠোরতম হবেন বলে এদিন কড়া বার্তা দেন বিচারপতি অশোক গঙ্গোপাধ্যায়। এপ্রসঙ্গে সরাসরি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একহাত নেন তিনি। সরাসরি নাম করে বিচারপতি  বলেন, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যখন প্রথম ‘সমালোচনা করেছিলাম, তখন আমি লাদাখে ছিলাম। ভেবেছিলাম একটা রুল ইস্যু করে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডাকব।” বিচারব্যবস্থার উপর কেউ অঙ্গুলী হেলন করলে, তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনা করলে ‘কঠোরতম’ হবেন বলেও এদিন হঁশিয়ারি দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।এদিন সরকারি অফিস থেকে যে কোনও ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদেরও সংযত আচরণ করার বার্তা দেন হাইকোর্টের বিচারপতি। অধস্তন কর্মীদের সঙ্গে অভদ্র ব্যবহার করলে তার পরিণতি মারাত্মক হতে পারে বলে সাবধান করেন বিচারপতি। ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের উদ্দেশ্যে তিনি  বলেন, “কর্মীদের সঙ্গে অভদ্র ব্যবহার করলে চাকরিও চলে যেতে পারে। খুব সাবধান। রেগে গিয়ে কখনও কিছু বলে ফেললেও পরে ক্ষমা চেয়ে নেবেন।”

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar