Sunday, January 29, 2023
Homeখবর এখনস্বাস্থ্যমন্ত্রকের উদ‍্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে পালিত হবে বিশেষ কর্মসূচি, যেখানে বাঁচবে অনেক...

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের উদ‍্যোগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে পালিত হবে বিশেষ কর্মসূচি, যেখানে বাঁচবে অনেক প্রাণ। কী সেই কর্মসূচি?

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ চলতি মাসেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্মদিন রয়েছে। ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকে স্মরণীয় করে রাখতে, বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক। জানা গিয়েছে, মোদীর জন্মদিন উপলক্ষে বিশাল রক্তদান শিবির আয়োজন করা হবে। গত বছর প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে করোনা টিকাকরণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছিল। তাতে ব্যাপক সাফল্য মিলেছিল। গত বছর সেই টিকাকরণ কর্মসূচিতে গোটা দেশে প্রায় ২ কোটি ৫০ লক্ষ করোনা টিকা দেওয়া হয়েছিল।সেই সাফল্যের কথা মাথায় রেখেই রক্তদান শিবির আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এ বছর প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত রক্তদান শিবির চলবে ১ অক্টোবর জাতীয় রক্তদান দিবস পর্যন্ত। এমনটাই জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, আজাদি কা অমৃত মহোৎসব থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে এই বিশাল রক্তদান শিবির কর্মসূচির নাম দেওয়া হয়েছে ‘রক্তদান অমৃত মহোৎসব’। জানা গিয়েছে, এই কর্মসূচির প্রক্রিয়া আরও সহজতর করতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে ই-রক্ত কোষ পোর্টাল চালু করা হয়েছে।রক্তদানে আগ্রহী ব্যক্তিরা এই পোর্টালের মাধ্যমে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। জানা গিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী জন্মদিনের দিন অর্থাৎ ১৭ সেপ্টেম্বর থেকেই রক্তদানের জন্য নাম নথিভুক্ত করার জন্য প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। পাশাপাশি আগ্রহী রক্তদাতারা আরোগ্য সেতু অ্যাপের মাধ্যমে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন।এদিকে, এই কর্মসূচি প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, দেশের প্রায় ৪ হাজার ব্লাড ব্যাঙ্কে ১ লক্ষ ৫০ হাজার ইউনিট রক্ত সংরক্ষণের পরিকাঠামো রয়েছে। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক রক্তদান প্রসঙ্গে বলেন, ‘গত বছর রেকর্ড তৈরি হয়েছিল। গিনেস বুক থেকে জানা গিয়েছে, একদিনে ৮০ হাজার ইউনিট রক্তদানের রেকর্ড রয়েছে। এবার নতুন রেকর্ড বানানোই আমাদের লক্ষ্য।’এই মুহূর্তের রক্তদান শিবিরের মাধ্যমে সংরক্ষিত রক্ত দেশের চাহিদা মেটাতে সক্ষম নয়। ২০২১ সালের সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির সময়ে ১৪ কোটি ৬০ লক্ষ ইউনিট রক্তের প্রয়োজনীয়তা ছিল কিন্তু দেশের ব্লাড ব্যাঙ্কগুলি সে সময় ১২ কোটি ৬০ লক্ষ ইউনিট রক্ত জোগান দিতে পেরেছিল। অর্থাৎ প্রয়োজনের তুলনায় জগান কম ছিল অনেকটাই। চিকিৎসকদের মতে৩৫০ মিলিলিটারের এক ইউনিট রক্ত ৩টি প্রাণ বাঁচাতে সক্ষম। তাই প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে এই মহৎ কর্মসূচির ফলে অনেকগুলি প্রাণ বাঁচানো সম্ভব হবে বলেই আশা করা হচ্ছে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar