Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখনবিহারে নীতীশ কুমার মোদীর গাঁটছাড়া ছাড়লেও সমীক্ষা অনুযায়ী কিন্তু নীতীশের কাছে...

বিহারে নীতীশ কুমার মোদীর গাঁটছাড়া ছাড়লেও সমীক্ষা অনুযায়ী কিন্তু নীতীশের কাছে মোদির জনপ্রিয়তাই ভয়ের কারণ…

 বিহারে বড় ধাক্কা বিজেপির! দীর্ঘদিনের সঙ্গ ত্যাগ করে ফের লালু পুত্র তেজস্বী যাদবের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন নীতীশ আর এরপরেই বিহারের বুকে ফের একবার মহাজোটের সরকার। অষ্টম বারের জন্যে মুখ্যমন্ত্রী  পদে শপথ নিয়েছেন নীতীশ, কিন্তু কেন বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করলেন তিনি?

যদিও নীতীশের দাবি একাধিক কারণ রয়েছে।তবে বিহারের বুকে ক্রমশ জনপ্রীয়তা বাড়ছে মোদির সম্প্রতি এক সমীক্ষাতেও এমন তথ্য সামনে এসেছে। আর সেটাই কি নীতীশের ভয়ের কারণ হয়ে উঠেছিল?সম্প্রতি লোকনীতি CSDS এর একটি সার্ভে সামনে এসেছে। যেখানে বেশ কিছু তথ্য সামনে এসেছে। ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত লোকনীতি সিএসডিএসের সমীক্ষায় বিহারের পাশাপাশি সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার তথ্য সামনে এসেছে। ২০১৩ সাল থেকে সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী মোদীর অনুমোদনের রেটিং ১৯ শতাংশ থেকে ২০২১ সালের মধ্যে ৪৪ শতাংশে বেড়েছে। অন্যদিকে শুধু বিহারেই প্রধানমন্ত্রী মোদীর জনপ্রিয়তার রেটিং ২০১৩ সালে ২৩ শতাংশ থেকে ২০২১ সালে ৫৩ শতাংশে বেড়েছে।ফলে এই সমীক্ষা তেই স্পষ্ট গোটা ভারতের তুলনায় বিহারে মোদীর জনপ্রিয়তা ব্যাপক ভাবে বাড়ছে। আর সেটাই কি চিন্তার কারণ হয়ে উঠছিল নীতিশের কাছে। তবে দেশে মোদীর জনপ্রিয়তা নিয়ে সিডিএসের সমীক্ষা দেখলে স্পষ্ট মোদীর জনপ্রিয়তা একাধিকবার ওঠা=নামা করেছে। ২০১৩ সালের পর স্পষ্ট চড়াই – উতরাই। ২০১৩ সালে মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে জনপ্রিয়তার রেটিং ছিল ১৯ শতাংশ। যা ২০১৪ সালে বেড়ে এক ধাক্কায় ৩৬ শতাংশ হয়ে যায়। ২০১৭ সাল পর্যন্ত সর্বস্তরে এই রেটিং চলে গিয়েছিল। যা সর্বকালীন রেকর্ড ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। আর সেই রেটিং ছিল ৪৮ শতাংশ। যদিও ২০১৮ সালে সেই গ্রাফ পড়ে ৩৭ শতাংশে চলে আসে। পাবলিক পলিসি সার্ভে পরিসংখ্যানের গ্রাফ ২০১৯ সালে উপরের দিকে উঠে ৪৭ শতাংশে পৌঁছয়। কিন্তু ২০২১ সালের মধ্যে ৪৪ শতাংশে চলে এসেছে।তবে বিহারের বুকে মোদীর জনপ্রিয়তাই কি আগামীদিনে খেলা ঘুরিয়ে দেবে। তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, নীতীশের জেডিইউ একাধিকবার মোদীর সঙ্গে এসেছে আর সঙ্গ ছেড়েছে। এই অবস্থায় আগামিদিনে নীতীশ যে বিজেপির সঙ্গে হাত মেলাবে না সেই কথা দেওয়া যায় না বলে দাবি রাজনইতিক বিশ্লেষকদের। একাংশের মতে, রাজনীতিতে সবটাই সম্ভব। তবে নীতীশ স্পষ্ট বার্তায় লালু পুত্রকে জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের সমস্ত কিছু ভুলে যান। এমনকি নতুন করে শুরু করার বার্তাও দিয়েছেন নীতীশ। তবে নতুন করে বিহারের বুকে মহাজোটের সরকার তৈরি হওয়াতে খুশি রাববী দেবী। তিনি জানিয়েছেন, সমস্ত কিছু মাফ।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar