Friday, January 27, 2023
Homeখবর এখনহারা ম্যাচ লড়তে চান না বলে বিরোধী পক্ষের রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হওয়ার প্রস্তাব...

হারা ম্যাচ লড়তে চান না বলে বিরোধী পক্ষের রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হওয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান পাওয়ারের

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ গতকাল একটি সূত্র মারফত জানা গিয়েছিল রাষ্ট্রপতি পদের জন্য মনোনয়ন দিতে পারেন লালু প্রসাদ যাদব। যদিও এই লালু প্রসাদ আরজেডি প্রধান নন। এবার জানা যাচ্ছে যে রাষ্ট্রপতি পদের বিরোধী দলের পক্ষ লড়াই করার কথা ছিল এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ারের। তবে এখন জানা যাচ্ছে যে তিনি এই লড়াই থেকে নিজেকে দূরেই রাখতে চাইছেন।শারদ পাওয়ার সম্ভবত রাষ্ট্রপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তাব পেয়েছিলেন কংগ্রেসের থেকে। তবে সেটি তিনি প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে জানা গিয়েছে। এর আগে জানা গিয়েছিল যে তিনি দেশের শীর্ষ পদের জন্য ১৮ জুলাইয়ের নির্বাচনে বিরোধী দলের প্রার্থী হিসাবে হতে পারেন৷ এখন জানা যাচ্ছে তিনি লড়তে চান না ওই পদের জন্য।শারদ পাওয়ার গত সন্ধ্যায় মুম্বইতে তার জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) একটি সভায় বলেছিলেন, ‘আমি প্রতিযোগিতায় নেই, আমি রাষ্ট্রপতির পদের জন্য বিরোধী প্রার্থী হব না।’ ৮১ বছর বয়সী প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অবশ্য কংগ্রেসের থেকে এই প্রস্তাব পেয়েছিলেন। কংগ্রেস তাঁকে গত সপ্তাহে পরামর্শ নিয়ে তার কাছে গিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। কংগ্রেসকে এই প্রার্থী না হওয়ার কথা না জানালেও তিনি জনসমক্ষে জানিয়ে দিলেন এই পদের জন্য তিনি লড়াই করতে চান না।পাওয়ার অনিচ্ছুক কারণ তিনি আত্মবিশ্বাসী নন যে বিরোধীরা তাঁকে জেতাতে গেলে যে প্রয়োজনীয় ভোট দরকার তা সংগ্রহ করতে পারবেন কি না। এমনটাই সূত্র মারফত খবর মিলেছে। সূত্র বলছে যে ‘তিনি হেরে যাওয়া যুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী নন,’।

তিনি আরও চমকে গিয়েছেন সাম্প্রতিক রাজ্যসভা নির্বাচন দেখে। মহারাষ্ট্রে, যেখানে বিজেপি শিবসেনার সঞ্জয় পাওয়ারকে পরাজিত করে একটি আসন পেয়ে গিয়েছে। বিজেপি তার প্রার্থীকে বেশ কয়েকজন স্বতন্ত্র বিধায়ক দ্বারা নির্বাচিত করতে সক্ষম হয়েছে যারা সেনাকে সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।পাওয়ারের মহারাষ্ট্রের মিত্র, কংগ্রেস এবং শিবসেনা, তাকে রাষ্ট্রপতি পদে বিরোধী পক্ষের প্রার্থী হিসাবে চায় বলে জানা গিয়েছে। প্রবীণ কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খার্গে গত বৃহস্পতিবার তার মুম্বইয়ের বাড়িতে পাওয়ারের সাথে দেখা করেছিলেন। পার্টি প্রধান সোনিয়া গান্ধীর একটি বার্তা নিয়ে তিনি গিয়েছিলেন পাওয়ারের কাছে।রবিবার, এনসিপি নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টির (এএপি) নেতা সঞ্জয় সিংয়ের কাছ থেকে একটি ফোন পেয়েছিলেন। মল্লিকার্জুন খার্গে শিবসেনা প্রধান এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এবং তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিনের সাথেও কথা বলেছেন।কংগ্রেস পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও পৌঁছেছে, যিনি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য একটি যৌথ কৌশল নিয়ে আলোচনা করার জন্য বুধবার দিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে বিরোধীদের বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছেন। খার্গে ফোনে মমতা ব্যানার্জির সাথে কথা বলেছেন বলে জানা যায়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar