Saturday, February 4, 2023
Homeখবর এখনরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিয়েই এবং তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব‍্যে জল্পনা বাড়ালেন খোদ ...

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিয়েই এবং তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব‍্যে জল্পনা বাড়ালেন খোদ মুকুল রায়

 প্রতিনিধি,মুক্তিযোদ্ধাঃ মুকুল রায় ফের জল্পনা বাড়ালেন। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানের পর পিএসি চেয়ারম্যান হয়েছিলেন তিনি। তারপর থেকেই মুকুল রায় নিজেকে ফের বিজেপি বিধায়ক হিসেবে পরিচয় দিচ্ছিলেন। বিজেপি বিধায়কের মতো আচরণ করছিলেন। কিন্তু পিএসি চেয়ারম্যান পদ ছাড়তেই ফের ভোল বদলে ফেললেন তিনি। এদিন তিনি যে মন্তব্য করলেন, তাতে আবারও জল্পনা শুরু হল, মুকুল তুমি কার?মুকুল রায় মানেই খবর! তিনি সক্রিয় থাকুন আর না থাকুন, সোমবার বিধানসভায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচন উপলক্ষে ভোট দিতে এসেছেন, তখন তো তাঁকে নিয়ে জল্পনার জটাজাল তৈরি হবেই! আসলে মুকুল রায় বর্তমান দল কোনটি, তিনি কোন দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন, তা বারেবারে নানা জবাবে অলঙ্কৃত করেছেন স্বয়ং তিনি। এদিনও তার অন্যথা হল না।মুকুল রায় তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কম্যান্ড ছিলেন পার্টির জন্মলগ্ন থেকে। সেই মুকুল রায় ২০ বছরের সম্পর্ক চুকিয়ে বিজেপিতে চলে গিয়েছিলেন ২০১৭ সালের নভেম্বরে। সাড়ে তিন বছর পর একুশের নির্বাচনে শেষে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক চুকিয়ে তিনি ফিরে আসেন তৃণমূলে। বিজেপি ছেড়ে তাঁর ঘর ওয়াপসি হয়। তিনি কি বিজেপির বিধায়ক থাকবেন, নাকি বিধায়ক পদ ছেড়ে দেবেন, তা নিয়ে বিতর্কের মাঝেই তাঁকে পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান করে দেওয়া হয়।এদিকে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকর করতে উঠে পড়ে লাগেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকেও তাঁকে অপসারণ করলে বিধানসভার গণ্ডি পেরিয়ে হাইকোর্ট-সুপ্রিম কোর্টেও মামলা গড়ায়। কিন্তু শেষমেশ বিধানসভায় মামলা ফিরতে জানিয়ে দেওয়া হয় মুকুল রায় বিজেপিতেই আছেন।এই পর্যন্ত মুকুল রায় নিজেকে বিজেপি বিধায়ক হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। এমনকী তৃণমূলের অনুষ্ঠানে গিয়েও তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তৃণমূল বিরোধী কথা বলে এসেছিলেন। তাতে অস্বস্তি বেড়েছিল তৃণমূলের। তা আবার মুকুল রায়ের মস্তিষ্ক বিকৃতি বলে বর্ণনা করা হয়েছিল। তবে একাংশ মুকুল রায়ের এই ধরনের তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্যকে কৌশলী বলেও বর্ণনা করেন।পিএসি চেয়ারম্যান পদ টিকিয়ে রাখতে এবং এই মামলায় শুভেন্দুকে জিততে না দিতেই এমন নানা পন্থা তিনি নিয়েছিলেন বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের একাংশের। কিন্তু বিধানসভার অধ্যক্ষ মুকুল রায় বিজেপিতেই আছেন বলে রায় দিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর করা অভিযোগ খারিজ করে দেন। তারপর আচমকাই তিনি পিএসি চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে দেন। তাঁর জায়গায় পিএসি চেয়ারম্যান করা হয় আর এক দলত্যাগী বিধায়ক কৃষ্ণকুমার কল্যাণীকে।পিএসি চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে দেওয়ার পর এদিনই প্রথম মুকুল রায় প্রকাশ্যে আসেন। বিধানসভায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট দিতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরকে তিনি বেমালুম বলেন, আমি বিজেপি নই। আমরা দল তৃণমূল। তৃণমূলই জিতবে। তাঁর এই কথার পর জল্পনা শুরু হয়ে যায় ফের। যিনি মাত্র কয়েকদিন আগেই বলেছিলেন তিনি বিজেপিতেই আছেন, কোনওদিনও তৃণমূলে যোগদান করেননি। তিনি এদিন বললেন, আমি বিজেপিতে নয়, তৃণমূলেই আছি। উল্লেখ্য, ঘটা করে সপুত্র মুকুল রায় যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে তাঁকে উত্তরীয় পরিয়ে দলে স্বাগত জানিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় স্বয়ং।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar