Wednesday, February 8, 2023
Homeখবর এখনমেঘলিগঞ্জে ফিরেই কয়েকটি মন্দিরে মাথা ঠেকালেন মন্ত্রী পরেশ...

মেঘলিগঞ্জে ফিরেই কয়েকটি মন্দিরে মাথা ঠেকালেন মন্ত্রী পরেশ…

 প্রতিনিধি,মুক্তিযোদ্ধাঃ এসএসসি দুর্নীতিকাণ্ডে তিন দিনে ১৬ ঘন্টারও বেশি সময় ধরে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। ইতিমধ্যেই পরেশ অধিকারী কলকাতা থেকে ফিরে গিয়েছেন মেখলিগঞ্জে। সেখানে পৌছে কয়েকিট মন্দিরে গিয়েছেন তিনি। গিয়েছেন মাজারেও, উল্লেখ্য সোমবার সকালে কলকাতা ছাড়েন পরেশ। বিমানে চড়ে বাগডোগরা পৌঁছন তিনি। সেখান থেকে সড়কপথে হলদি বাড়িতে যান। পরেশ অধিকারী পৌছতেই তাঁকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানায় দলের কর্মীরা। এরপর হলদি বাড়িতে তৃণমূল দফতরে যান তিনি। সেখানে বেরিয়ে হলদি বাড়ি বাজারে পুজো দেন পার্থনা করেন তিনি। দুর্গামন্দিরে পুজো দেওয়ার পর হলদিবাড়িতে একটি মাজারে গিয়েও পার্থনা করেন তিনি। সেখান থেকে তিনি রওনা দেন নিজের বাড়ির উদ্দেশ্যে। মেখলিগঞ্জে কর্মীসমর্থকেরা, পরেশকে সংবর্ধনা দেন। এছাড়াও মেখলিগঞ্জি একটি মন্দিরে পুজো দেন  রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী। কোচবিহারের এনএন মেমোরিয়াল হলে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে দেখা করেন পরেশ অধিকারী। ঘরোয়া বৈঠক হলেও শুরুতেই সবাইকে মোবাইল বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এমনকি সংবাদ মাধ্যমকেও ছবি তুলতে বাধা দেওয়া হয়েছে। বৈঠকে পরেশ অধিকারী বলেন, আইন আইনের মতো চলবে,কোনও চিন্তা নেই। তিনি আবার আগের মতোই সব জায়গায় যাবেন। কলকাতার দলের নের্তৃত্ব তাঁর সঙ্গে আছেন বলে জানান তিনি। পরেশ বলেন’, এই কয়েকদিনের মধ্যে দেখা গেল, কে দলের আসল লোক আর কে নকল।’এসএসসি দুর্নীতি মামলায় এমনিতেই সিবিআই-র কড়া নজরে রয়েছেন পরেশ অধিকারী। এর মধ্যে পরেশ অধিকারীর নিজের মেয়ের নিয়োগ নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। অভিযোগ, মেধা তালিকায় না থেকেও মন্ত্রীর মেয়ে চাকরি পেয়ে গিয়েছেন। এনিয়ে ববিতা সরকার নামে এক পরীক্ষার্থী মামলা করেছিলেন। ববিতার দাবি, তাঁর থেকে কম নাম্বার ছিল মন্ত্রীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর। তারপরেও নিয়োগপত্র হাতে পাননি ববিতা। অথচ ২০১৮ সালে মেখলিগঞ্জের একটি স্কুলে চাকরি পান অঙ্কিতা অধিকারী।  সেই নিয়োগ ইতিমধ্যেই বাতিল করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। কোচবিহারের স্কুল থেকে বরখাস্ত হয়েছেন অঙ্কিতা। তাঁকে পুরো বেতনের টাকা ফেরতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, একদা ফরোয়ার্ড ব্লকের নেতা ছিলেন পরেশ অধিকারী। রাজ্যের খাদ্য মন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেছেন। দল বদলে যখন ২০১৯ সালে তিনি তৃণমূলে এলেন, তখন তাঁর প্রভাব কমেনি। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছিলেন, ‘মেয়ের চাকরি সহ তিনটি শর্তেই তৃণমূলে এসেছিলেন পরেশ। পরে লোকসবা ভোটে হারলেও যখন বিধানসভা ভোটে জিতলেন , তখন রাজ্যের শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রী করে দেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।’

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar