Friday, January 27, 2023
Homeদেশবিজেপি বিধায়কের প্রশ্ন- মোদী-মমতার সাক্ষাত্‍ কি আদতে কোনো অন্য দিকের নিশানা...

বিজেপি বিধায়কের প্রশ্ন- মোদী-মমতার সাক্ষাত্‍ কি আদতে কোনো অন্য দিকের নিশানা…

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাক্ষাৎকে বিরোধীদের পক্ষ থেকে সিপিএম ও কংগ্রেস ব্যাখ্যা করেছিল এই বৈঠক সেটিং-এর  হিসেবে। এবার বিজেপিতেও উঠে পড়ল সেই এক তত্ত্ব। বিজেপির বিধায়ক বিধানসভার বিরোধী দলনেতার ঘরে মুখ্য সচেতক-সহ পরিষদীয় দলের বৈঠকে তৃণমূলের সঙ্গে সেটিংয়ের দাবিতে সরব হলেন।শনিবার উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন। তার আগে শুক্রবার স্বাধীনতা দিবসের তাত্‍পর্য ও কর্মসূচি নিয়ে দলের বিধায়কদের নিয়ে অনলাইন বৈঠক করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর ঘরে সমবেত হয়ে বিজেপি বিধায়করা সেই ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন। সেখানেই ঘটল বিপত্তি।বৈঠকের মাঝেই হলদিয়ায় বিজেপি বিধায়ক তাপসী মণ্ডল দাবি তোলেন তৃণমূলের সঙ্গে সেটিং করার। বিজেপির সংগঠনের হাল তুলে ধরে তিনি সেটিং-এর প্রস্তাব দেন। বলেন, যদি তৃণমূলের সঙ্গে সেটিং হয়, তাহলে ভালোই হবে। দলের সংগঠনের যে হাল, তাতে কাজ করা যায় না। তাঁর কথায় স্পষ্ট হয়ে ওঠে, দলের সংগঠন শুভেন্দুর খাসতালুকেও বেহাল।জেপি নাড্ডার সঙ্গে বিজেপি বিধায়কদের বৈঠক চলাকালীন কংগ্রেস ও সিপিএমের তরফে তোলা সেটিংয়ের অভিযোগের প্রসঙ্গ ওঠে। তখনই হলদিয়ার বিধায়ক তাপসী মণ্ডলও সেটিংয়ের দাবি তোলেন। তাপসী মণ্ডল স্পষ্ট করেই বলেন, দলের সংগঠনের যে হাল তাতে সেটিং হলে খারাপ হয় না। তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে দলের অন্দরে ঝড় ওঠে।তাপসী মণ্ডলের করা সেটিং মন্তব্য নিয়ে বিজেপির মুখ্য সচেতক মনোজ টিগ্গাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নেন। তিনি বলেন, এটা নিতান্তই ব্যক্তিগত মতামত। তবে এই জাতীয় মন্তব্য দলের অন্দরে করলেই ভালো হয়। কিন্তু বিধানসভায় বিরোধী দলনেতার ঘরে বসে মুখ্য সচেতকের সামনে এমন মন্তব্য করলেন বিধায়ক, আবার তা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকের মাঝে, তাই প্রশ্ন তো থেকেই যাচ্ছে।উল্লেখ্য, রাজ্য রাজনীতিতে যখন ইডির হানায় বিপর্যন্ত তৃণমূল ও রাজ্যের মা-মাটি-মানুষের সরকার, তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি গিয়েছেন। দিল্লি সফরের দ্বিতীয় দিনেই তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এই সাক্ষাত্‍কে সিপিএম বলেছে সেটিংয়ের বৈঠক। আর কংগ্রেসের আখ্যা দিয়েছে ম্যানেজের বৈঠক। তারপর বিজেপির বিধায়কও সেটিংয়ের দাবি তুললেন।আবার প্রশ্নও উঠছে, বিজেপি সাংসদরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের টাইম পান না, তৃণমূল সুপ্রিমো বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইলেন পান। তৃণমূল এর পরিপ্রেক্ষিতে বলেছে, একজন মুখ্যমন্ত্রী দিল্লিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন, তা নিয়ে অযথা জলঘোলা করা হচ্ছে। সিপিএমের অভিযোগ, কেন্দ্রের সঙ্গে অফিসিয়াল বৈঠকে যোগ দেন না রাজ্য সরকারের কোনও প্রতিনিধিও, আর আন-অফিসিয়ালি বৈঠকে চলে যান মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের দাবি-দাওয়া আদায়ে গিয়েছেন, তাহলে ফাইল কোথায়, সরকারি আধিকারিকরা নেই কেন, প্রশ্ন তোলেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar