Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখনকালী মন্তব্যে বিপাকে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র- পাশে নেই দল, গ্রেফতারের হুঁশিয়ারি...

কালী মন্তব্যে বিপাকে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র- পাশে নেই দল, গ্রেফতারের হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ সিগারেট হাতে কালীর পোস্টার ইস্যু নিজের মত জানিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ মহুয়া মৈত্র। কিন্তু তাঁর মন্তব্যের পর তাঁর পাশে থাকেনি দল। রীতিমত হাতগুটিয়ে নিয়ে তৃণমূল জানিয়ে দিয়েছে এই মন্তব্য মহুয়ার ব্যক্তিগত। কিন্তু এখানেই শেষ নয়। তৃণমূলের বিরোধী রাজনৈতি দলও এবার মহুয়া মৈত্রের বিরোধিতায় সামিল হয়ে। বিজেপি নেতা তথা  রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী মহুয়া মৈত্রকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। মহুয়া মৈত্রকে গ্রেফতারের জন্য তিনি কলকাতা পুলিশকে ১০ দিন সময়সীমা বেঁধেও দিয়েছেন। মহুয়া মৈত্রকে গ্রেফতারের বিষয়ে তিনি রীতিমত হুঁশিয়ারি দিয়েছেন কলকাতা পুলিশকে। তাঁর দাবি দ্রুত গ্রেফতার করা হোক মহুয়াকে। 

শুভেন্দু প্রথম থেকেই সরব মহুয়া মৈত্র ইস্যুতে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে মহুয়া মৈত্রের কালী নিয়ে বক্তব্যের জন্য তিনি সরাসরি নিশানা করেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনি বলেছিলেন কবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কলকাতা পুলিশ মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশ জারি করবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য সম্প্রতি বিজেপির সাসপেন্ড হওয়া নেত্রী নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিশ লুকআউট নোটিশ জারি করেছিল। যাইহোক সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেন্দুর প্রশ্ন ছিল কী করে মহুয়া দেবী কালীকে নিয়ে এমন মন্তব্য করতে পারেন। শুধু শুভেন্দু অধিকারী নয়- বিজেপি রাজ্যসভাপতি সুকান্ত মজুমদারও মহুয়া মৈত্রকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মা কালীকে সনাতন ধর্মে অ্যালকোহল এবং মাংস ভক্ষণকারী দেবী রূপে উপাসনা করা হয় না। মা কালী হিন্দুদের কাছে যুগ যুগ ধরে অশুভ শক্তির বিনাশকারী শক্তির প্রতীক রূপে পুজিত হয়ে আসছেন। মহুয়া মৈত্রের মা কালী সম্পর্কে এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেফতারে দাবী জানাচ্ছি। 

মঙ্গলবার একটি অনুষ্ঠানে মহুয়া পোস্টারে সিগারেট হাতে কালী বিতর্কে নিজের মন্তব্য জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছেলিনে,  কালীর এই পোস্টারে তাঁর কোনও আপত্তি নেই। কারণ শাক্তমতে কালী পুজোর এমন কিছু আচর রয়েছে যার সঙ্গে এই পোস্টারের সাদৃশ্য রয়েছে। মঙ্গলবার তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ মহুয়া মৈত্র বলেছেন যে কালী, তাঁর কাছে একজন মাংসভোজী, মদ গ্রহণকারী দেবী। দেবী কালীকে যে কোনও মানুষই তাঁর নিজের মত করে কল্পনা করতে পারে। কথা প্রসঙ্গে তিনি তারাপীঠের পুজোর কথাও উল্লেখ করেছে। বলেছেন সেখানে কালীপুজো ব্যবহার করা মদ। তবে মহুয়া মৈত্রের এই মন্তব্যে রীতিমত বেগ পেতে হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসকে। বিজেপি নেতা রথীন বসু সোশ্যাল মিডিয়ায় মহুয়ার মন্তব্য নিয়ে সরাসরি তৃণমূল নেত্রীকে নিশানা করেছেন। তিনি বলেছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় নিজের বাড়িতে কালী পুজো করেন। তিনি মহুয়া মৈত্রের মত সমর্থন করেন কিনা তাও জানতে চেয়েছে। যদিও তার আগে থেকেই তৃণমূল নেতৃত্বের একটা অংশ জানিয়ে দিয়েছে কালীর পোস্টার নিয়ে মহুয়ার মত একান্তই তাঁর ব্যক্তিগত। মন্তব্যের দায় তৃণমূল কংগ্রেসের নয়। 

কথা প্রসঙ্গে মহুয়া আরও জানিয়েছিলেন, সিকিম বা উত্তর প্রদেশের কালী আরাধনায় হুইস্কির ব্যবহার করা হয়। তিনি আরও বলেছিলেন দেবী কালীকে যে কোনও ভক্ত তাঁর নিজের মত করে আরাধনা করতে পারে। কিন্তু এই মন্তব্যের পরই সরব হয়েছে তাঁর দল।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar