Sunday, January 29, 2023
Homeখবর এখনইডি-সিবিআই নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তোপ মমতার কেন্দ্রীয় এজেন্সিগুলির স্বায়ত্ব শাসনের দাবি মমতার..

ইডি-সিবিআই নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তোপ মমতার কেন্দ্রীয় এজেন্সিগুলির স্বায়ত্ব শাসনের দাবি মমতার..

 প্রতিনিধি:-

 কেন্দ্রীয় সংস্থা ইডি ও সিবিআই ইস্যুতে আবারও সরব হয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের ইচ্ছেমত এই সংস্থাগুলিকে ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, বিজেপির শাসন ব্যবস্থা অ্যাডলফ হিটলার, জোসেফ স্ট্যালিন বা বিনেটো মুসোলিনির চেয়েও খাবার।  

 সাংবাদিক সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন দেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির স্বায়ত্বশানের দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘বিজেপি সরকার এজেন্সিগুলিকে ব্যবহার করছে,রাজ্যের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার জন্যই এজেন্সিগুলিকে ব্যবহার করা হচ্ছে। ভারতের ফেডারেল স্ট্রাকচারকে পুরো বুলডোজ করে দেওয়া হচ্ছে,তাই এই সংস্থাগুলির স্বায়ত্ব শাসন দেওয়া জরুরি।’ তারপরই তিনি বলেন, ‘গেরুয়া পার্টির শাসন অ্যাডলফ হিটলার জোসেফ স্ট্যালিন বা বেনিটো মুসোলিনির  থেকেও খারাপ।’সম্প্রতি এই রাজ্যে যথেষ্ট সক্রিয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলি। বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার কেলেঙ্কারি, কয়লা ও গরু পাচার, ভোট পরবর্তী হিংসা, এসএসসি দূর্ণীতিসহ একাধিক ঘটনার তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় দুটি সংস্থা সিবিআই ও ইডি। এইসব মামলায় নাম জড়িয়ে পড়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা ও মন্ত্রীদের। যা বারবার অস্বস্তি বাড়াচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের। তাঁর ভাইপো তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও তাঁর স্ত্রী রুজিরাকেও একাধিকবার  কেন্দ্রীয় সংস্থার জেরার মুখোমুখি হতে হয়েছে। সম্প্রতি রাজ্যের দুই মন্ত্রীকে পার্থ চট্টোপাধ্য়ায় ও পরেশ অধিকারীকে নিয়ে টানাটানি শুরু করেছে সিবিআই। যা তৃণমূল সরকারের অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। মমতা ঘনিষ্ট হিসেবে পরিচিত অনুব্রত মণ্ডলকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই। সেই আবহেই সোমবার নবান্নে তদন্তকারী সংস্থার অপব্যবহার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে সরব হন মমতা। এখানেই শেষ নয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকারের পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমোনোরও তীব্র সমালোনা করেন। তিনি বলেন, এটি নির্বাচনী স্ট্যান্ট ছাড়া আর কিছুই নয়। শনিবার কেন্দ্রীয় সরকার জ্বালানি তেলের আবগারি শুল্ক কমিয়েছে। লিটার প্রতি পেট্রোলে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৮ টাকা আর ডিজেলে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৬ টাকা। জ্বালানি তেলের দাম কমানোর কথা ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ রাজ্যগুলির কাছেও জ্বালানি তেলের দাম কমানোর আর্জি জানিয়েছেন। তবে মমতা এদিন বলেছেন কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপে শুধুমাত্র দারিদ্রসীমার নিচে বসবাসকারী মানুষদের সুবিধে হবে।  তিনি বলেন মধ্যবিত্তরা এতে তেমন উপকারী হবে না।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar