Sunday, January 29, 2023
Homeখবর এখনপঞ্চায়েত ভোটের পরিপ্রেক্ষিতে শুভেন্দু কর্মীদের তৃণমূলের সন্ত্রাস ও কারচুপি প্রসঙ্গে হুঁশিয়ারি দিলেন...

পঞ্চায়েত ভোটের পরিপ্রেক্ষিতে শুভেন্দু কর্মীদের তৃণমূলের সন্ত্রাস ও কারচুপি প্রসঙ্গে হুঁশিয়ারি দিলেন…

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ 

রাজ্যে তৃণমূলকে চাপে রাখতে গেলে ক্ষমতায় নিচুর তলা থেকে তা শুরু করতে হবে তা বিলক্ষণ জানেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ২০০৮ সালে এই রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনে বেশ কয়েকটি জেলায় সিপিএমকে  নাড়িয়ে যা শুরু করেছিল তৃণমূল। সেদিকে লক্ষ্য রেখেই সামনের বছরের পঞ্চায়েত নির্বাচনে বুথ দখল এবং কারচুপি প্রতিরোধ করে তৃণমূলকে ঠেকাতে বিজেপি কর্মীদের প্রস্তুতি নিতে আহ্বান জানিয়েছে তিনি।বিরোধী দলনেতা বলেছেন বীরভূমের সংখ্যালঘুদের হত্যাকাণ্ড সাধারণ মানুষ ভুলে যাননি। তাঁর দাবি সংখ্যালঘু সম্প্রদায় তৃণমূলের প্রতি বিরক্ত। পঞ্চায়েত নির্বাচনে তার প্রতিফলন ঘটবে বলে মনে করেন তিনি। শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষেরা বুঝতে পেরেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁদের শুধুমাত্র ব্যবহার করছে, তাঁদের সুবিধার জন্য কাজ করেনি। এব্যাপারে তিনি নিজের নন্দীগ্রামের কথা উল্লেখ করে দাবি করেছেন. সেখানকার সংখ্যালঘু ভাইরা তৃণমূল নেতাদের কাজে ক্ষুব্ধ।২০২১-এর ২ মে নন্দীগ্রামের ভোটে শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হয়েছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই উপলক্ষে হওয়া এক সভায় বিরোধী দলনেতা অভিযোগ করে বলছেন, ২রা মে ভোটের ফল ঘোষণার পর থেকে তৃণমূল নন্দীগ্রামে হিংসা চালিয়েছিল। তিনি দাবি করেন নন্দীগ্রামের মানুষ এই ধরনের সন্ত্রাসে ভয় পায় না বলেও মন্তব্য করেছেন বিরোধী দলনেতা।শুভেন্দু অধিকারী অভিযোগ করেছেন, তৃণমূল প্রতিহিংসা পরায়ণ। তিনি বলেছেন, ফল প্রকাশের পরে তৃণমূল একদিকে বিজেপির একের পর এক পার্টি অফিস ভাঙচুর করেছিল, কর্মীদের বাড়ি ভাঙচুর করে পুড়িয়ে দিয়েছিল এবং বেশ কয়েকজন কর্মীকে হত্যাও করেছিল। কিন্তু নন্দীগ্রামের মানুষ পাল্টা লড়াই করেছিল। তিনি বলেছেন, আদালতের হস্তক্ষেপের পরে এই ধরনের নেতাদের অনেকেই আর এলাকায় নেই। তৃণমূলের প্রশাসন বিজেপি নেতা-কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা করলেও, তা সফল হয়নি বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।শুভেন্দু অধিকারী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, পঞ্চায়েত ভোটে সন্ত্রাস এবং কারচুপি করার চেষ্টা হলে প্রতিরোধ হবে। এব্যাপারে তৃণমূলকে তিনি সতর্ক করেছেন। বিরোধী দলনেতা বলেছেন, যদি তৃণমূল ভোট লুটের চেষ্টা করে, তাহলে নন্দীগ্রাম-সহ অন্যত্র প্রতিরোধ হবে আর যদি কারচুপি হয়, তাহলে বুথ থেকে ইভিএম বের করে নিয়ে যাওয়ার সময় বাধা দেওয়া হবে। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে ধারাবাহিক কর্মসূচি নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। নন্দীগ্রামে ভোট পরবর্তী হিংসা মৃত দেবব্রত মাইতির মূর্তির উন্মোচন করা হবে ১৩ মে, জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। এলাকায় এমজিএনআরইজিএ-র কাজে দুর্নীতির প্রতিবাদ করে গ্রাম পঞ্চায়েতগুলিতে ডেপুটেশন দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar