Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখনপ্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মেক ইন ইন্ডিয়া স্লোগানকে মাথায় রেখে হেলিকপ্টার..

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মেক ইন ইন্ডিয়া স্লোগানকে মাথায় রেখে হেলিকপ্টার..

প্রতিনিধি:-

 আফগানিস্তান থেকে আমেরিকার সৈন্য সরিয়ে নেওয়ার মাঝেই ভবিষ্যতের কথা ভেবে চলছে ভারতীয় সেনাদের প্রস্তুতি। আর এর মাঝে এল IMRH অর্থাত্‍ ইন্ডিয়ান মাল্টি রোল হেলিকপ্টারের তরফ থেকে এক সুখবর। জানা যাচ্ছে স্থলোসেনা এবং বায়ুসেনার পরে ভারতীয় নৌ সেনাও এবার এই প্রোজেক্টে যোগদান করতে চলেছে।এখনো পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী হ্যাল এই প্রোজেক্টের জন্য প্রয়োজনীয় উইন্ড টানেল এবং স্কেল মডেল টেস্টিং সম্পন্ন ৬টি প্রোটোটাইপ তৈরির জন্য ভারত সরকারের কাছ থেকে ১০ হাজার কোটি টাকা চাইবে। ২০২৫- ২৬ সালের মধ্যেই হবে এর প্রথম টেস্ট ফ্লাইট। আগে তিনজন অভিজ্ঞ সেনা গোটা ব্যাপারটা পর্যবেক্ষণ করে গ্রীন সিগনাল দিলে কেবলমাত্র তখনই অর্ডার করা হবে মাল্টি রোল হেলিকপ্টার। সবকিছু ঠিকঠাক মত চললে আশা করা যায় ২০৩২ সালেই এই হেলিকপ্টার পৌঁছে যাবে সেনার হাতে।IMRH হল HAL এর এমন এক মিডিয়াম লিফট হেলিকপ্টার প্রজেক্ট যা ভারতীয় সেনার ব্যবহৃত মি ৮ হিপ ও মি ১৭ হেলিকপ্টার গুলোকে ভবিষ্যতে প্রতিস্থাপন করবে। স্থলসেনা এবং বায়ুসেনা তো আগে থেকেই রাজি ছিল তার সাথে নৌসেনাও এখন যোগ দেওয়ায় নতুন আরো বেশ কয়েকশো হেলিকপ্টার দরকার। যার ফলে গোটা প্রজেক্টটি আর্থিক ভাবে যেমন বেশ লাভজনক হলো তেমনি পার ইউনিট কস্ট ও অনেকটাই কমে যাবে। এছাড়া এর এক্সপোর্ট পটেন্সিয়াল বেশ হাই হওয়ায় ভারতের বাঁচবে প্রায় ২ লক্ষ কোটি টাকার ওপর বিদেশী মুদ্রা।

দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট ১৩ মিডিয়াম লিফটের এই IMRH দুজন ক্রু ছাড়া ২৪ থেকে ৩৬ জন সেনাকে পরিবহন করতে সক্ষম। বেশি উচ্চতা সম্পন্ন অঞ্চলের সহজে যাতায়াত করার স্বার্থে গ্লাস ককপিট ও কম্পোজিট মেটেরিয়াল দিয়ে তৈরি পাঁচ ব্লেড বৈশিষ্ট বায়ুসেনার হেলিকপ্টার গুলির ওজন আরো বেশ কিছুটা কম হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মেক ইন ইন্ডিয়া স্লোগানকে মাথায় রেখে এই হেলিকপ্টার ৭৫ শতাংশ দেশীয় প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি করা হবে। শোনা যাচ্ছে নৌসেনার ব্যবহারের জন্য তৈরি হেলিকপ্টারগুলিতে বিশেষ সেন্সর ও স্ক্যানার ও যুক্ত ল্যান্ডিং গিয়ার ব্যবহৃত হবে। নৌ সেনার জন্য তৈরি হেলিকপ্টারগুলি ৪ টন ওজনের সরঞ্জাম নিয়ে সমুদ্র ও পার্বত্য অঞ্চলের ওপর দিয়ে অনায়াসে উড়তে পারবে। এতে মিসাইল ও ট্র্পেডো থাকবে আন্টি শিপিং ও আন্টি সাবমেরিন রোলের জন্য। অপরদিকে সেনা ও বায়ুসেনার জন্য তৈরি হেলিকপ্টারগুলি দেড় হাজার টন সরঞ্জাম নিয়ে ১৩হাজার ফুট উঁচুতে উড়তে পারবে। এই হেলিকপ্টারগুলিতে আবার হার্ড পয়েন্ট রকেট ,মেশিনগান মাউন্ট লাগানোর ও ব্যবস্থা থাকবে। 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar