Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখনকেষ্টর গাড়িতে লালবাতি যা শুনেই কড়া ডোজ ফিরহাদের-অনুব্রত-র অধিকার নেই গাড়িতে লালবাতি...

কেষ্টর গাড়িতে লালবাতি যা শুনেই কড়া ডোজ ফিরহাদের-অনুব্রত-র অধিকার নেই গাড়িতে লালবাতি লাগানোর’..

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ অনুব্রত-র কোনও অধিকার নেই গাড়িতে লালবাতি লাগানোর’, কড়া ডোজ এবার ফিরহাদের। শুক্রবার বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের গাড়িতে লালবাতি লাগানো নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেন আইনজীবী তথা বিজেপি নেতা তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। হাইকোর্টে কেষ্টর বিরুদ্ধে বিজেপি নেতার জনস্বার্থ মামলা করার পর এবার ঘরের লোকের তোপের নিশানায় কেষ্ট। এদিন এনিয়ে রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী  ফিরহাদ হাকিম সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘অনুব্রত-র গাড়িতে লালবাতি লাগানো ঠিক হয়নি।’জানা গিয়েছে, বরাবরই লালবাতি লাগানো গাড়িতে ঘোরেন বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। চলতি মাসের শুরুতেই যেদিন সিবিআই-এর তলবে সাড়া দিয়ে কলকাতামুখী হয়েছিলেন, তখন সেই লালবাতি লাগানো গাড়িতেই এসেছিলেন কেষ্ট। তার ওই গাড়ি করেই এসএসকেম-এ ভর্তি হয়ে যান। সেইসময়ই শুরু হয়েছিল, নানা আলোচনা। আদৌ অনুব্রত মণ্ডল কি লালবাতি লাগানো গাড়ি ব্যবহার করতে পারেন। আর এবার সেই লালবাতি গাড়ির জন্য আইনি জটে অনুব্রত। শুক্রবার বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের গাড়িতে লালবাতি লাগানো নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেন আইনজীবী তথা বিজেপি নেতা তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। একজন জেলা সভাপতি হয়ে কীভাবে লালবাতি লাগানো গাড়ি চড়ছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন আইনজীবী। আগামী সপ্তাহে এই মামলার শুনানি হতে পারে বলে খবর। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী, কেউ ব্যাক্তিগত গাড়িতে লালবাতি লাগাতে পারেন না। মন্ত্রী, বিধায়ক, সংসদরাও নন। অ্যাম্বুলেন্স এবং দমকলের গাড়িতে নীল বাতি লাগানোর অনুমতি রয়েছে। সেক্ষেত্রে দীর্ঘদিন যাবৎ অনুব্রত লালবাতি লাগানো গাড়ি চড়লেন, প্রশ্ন উঠেছে।এদিন ফিরহাদ হাকিম স্পষ্ট বলেছেন, ‘অনুব্রত-র কোনও অধিকার নেই গাড়িতে লালবাতি লাগানোর।লালবাতি লাগানো ঠিক হয়নি একেবারেই অনুব্রত-র। একই সঙ্গে পরিবহণমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি, আইন ভেঙে কেউ গাড়িতে লালবাতি, কিংবা নীলবাতি ব্যবহার করলে, এবার সেই গাড়ি বাজেয়াপ্ত করবে সরকার। খুব শ্রীঘ্রই এনিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে। ফিরহাদের স্পষ্ট বার্তা, আইনের হাত থেকে রেহাই পাবেন না কেউই। ফিরহাদ আরও বলেন, অনুব্রত মন্ডল লালবাতি পাওয়ার ক্ষেত্রে অনুমোদন প্রাপ্ত নন। লালবাতি অনুব্রত নিয়েছে, এটা উচিত হয়নি। আমি খুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছি। লালবাতির তালিকায় যাদের অনুমোদন রয়েছে, তাঁদের মধ্যে অনুব্রত মণ্ডল নেই।’ তিনি আরও বলেন, এবার থেকে লালবাতি এবং নীলবাতি পাওয়ার অধিকারি নন, এমন কেউ যদি গাড়িতে এই বাতি ব্যবহার করেন, তাহলে শুধু মাত্র আলো খুলে নেওয়া হবে ভাবলে ভূল হবে, গাড়ি কেড়ে নেওয়া হবে।’

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar