Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখনবিজেপির বিকাশ ভবন অভিযান ঘিরে ধন্ধুমার-কাণ্ড! একাধিক ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা

বিজেপির বিকাশ ভবন অভিযান ঘিরে ধন্ধুমার-কাণ্ড! একাধিক ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা

 প্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধাঃ বিজেপির বিকাশ ভবন অভিযান ঘিরে ধন্ধুমার-কাণ্ড। এই অভিযানে পুলিশের তরফে কোনও অনুমতি দেওয়া হয়নি। অনুমতি ছাড়াই এই অভিযানের ডাক দেয় বিজেপির যুব মোর্চা। নিয়োগে দুর্নীতি সহ একাধিক ইস্যুতে আজ মঙ্গলবার এই বিকাশ ভবন অভিযানের ডাক দেওয়া হয়।

আর এই অভিযানে একাধিক বিজেপির শীর্ষ বঙ্গ বিজেপি নেতা রয়েছেন।রয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, শুভেন্দু অধিকারী সহ একাধিক নেতা। এছাড়াও একেবারে মিছিলের সামনে রয়েছেন তেজস্বী সূর্য। কিন্তু মিছিল বিকাশ ভবনের সামনে যাওয়ার আগেই আটকে দেওয়া হয়। আর তা আটকে দিতেই কার্যত ধন্ধুমার কাণ্ড বেঁধে যায়।

একের পর এক ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা বিজেপি নেতা-কর্মীদের। পালটা প্রতিরোধের চেষ্টা পুলিশের তরফেও। দুপক্ষের ধস্তাধস্তিতে তুলকালাম অবস্থা বিকাশ ভবনের সামনে। যদিও বিজেপির মিছিল সম্পূর্ণ ভাবে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশের তরফে জলকামান ব্যবহার করা হচ্ছে।

ভয়ঙ্কর সেই জল কামানের সামনে দাঁড়াতে রীতিমত বেগ পেতে হচ্ছে বঙ্গ বিজেপি নেতাদের। অন্যদিকে এই ঘটনায় শিয়ালদহে বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করা হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, গণতন্ত্র বলে কিছু নেই এই রাজ্যে। জলে ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এসএসসিতে দুর্নীতি সামনে এসেছে। কীভাবে তৃণমূলের বিধায়করা 

তালিকা পাঠিয়ে এসএসসিতে চাকরি করে দিয়েছেন সেই সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য সামনে আসবে বলে দাবি বিজেপি নেতার।

শুধু তাই নয়, সিবিআই তদন্তে সমস্ত কেলেঙ্কারি সামনে আসবে বলেও দাবি সুকান্ত মজুমদার। শুধু তাই নয়, বিজেপির আন্দোলনকে পুলিশ ভয় পাচ্ছে বলেও দাবি তাঁর। তবে যতক্ষণ পর্যন্ত না বিকাশ ভবনে তাঁদের যেতে দেওয়া হচ্ছে ততক্ষণ সল্টলেকেই অবস্থান বিক্ষোভ বিজেপির যুবমোর্চার তরফে চলবে বলে দাবি বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

তবে বিজেপির এই কর্মসূচি ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা বিকাশ ভবনের সামনে। দফায় দফায় বিজেপি এবং পুলিশের খন্ডযুদ্ধে উত্তাল এলাকা। যদিও পুলিশের তরফে বারবার মাইকিং করা হচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হচ্ছে না। শেষমেশ পুলিশের তরফে লাঠিচার্জ করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ।

এদিন সকালেই রাজ্য সভাপতি ইন্দ্রনীল খাঁ হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছিলেন, অনুমতি ছাড়াই হবে মিছিল। সেই মতো সকাল থেকেই করুণাময়ীর সামনে জমায়েত শুরু করেন বিজেপি কর্মীরা। পালটা পুলিশের তরফেও প্রস্তুতি নেওয়া হয়। বিকাশ ভবনের সামনে একের পর এক ব্যারিকেড দেওয়া হয়। প্রস্তুত রাখা হয়েছে কাঁদানে গ্যাস এবগ জল কামান। যদিও ইতিমধ্যে জল কামান ব্যবহার করা হলেও কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করা হয়নি।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar