Friday, January 27, 2023
Homeখবর এখনশিবসেনা চান মমতাকে সামনে রেখেই হোক বিজেপি বিরোধী জোট...

শিবসেনা চান মমতাকে সামনে রেখেই হোক বিজেপি বিরোধী জোট…

 প্রতিনিধি:-

 কংগ্রেসকে ছাড়া বিজেপির বিরোধী ঐক্যের বিরুদ্ধে ছিল শিবসেনা। শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত জোর সওয়াল করে জানিয়েছিলেন বিজেপিকে হারাতে কংগ্রেসের নেতৃত্বে জোট চাই। কংগ্রেসকে বাইকরে রেখে বিজেপি বিরোধী জোট মূল্যহীন। তিনি সেই কারণে কংগ্রেস হাইরম্যান্ড রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকও করেছিলেন কিন্তু এখন তিনি মত বদলে মমতাকেই নেতৃত্বে চাইছেন।২০২৪-এর নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়াকে সামনে রেখে বিরোধী জোট গড়ে তোলার বার্তা দিলেন তিনি। তিনি বলেন, কালবিলম্ব না করে বাংলা, তেলেঙ্গানা, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রীর আলোচনা শুরু করা উচিত। শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’য় তা উল্লেখ করা হয়েছে ফলাও করে।শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত ‘সামনা’য় লিখেছেন, কংগ্রেস যখন এগিয়ে আসছে না, তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই এগিয়ে আসতে হবে। কংগ্রেসকে আবেদন-নিবেদন করেও সাড়া পাওয়া যায়নি। তাদের বিরোধী জোট গড়ার জন্য অন্য অনেক দলের মতো তাঁরাও আবেদন জানিয়েছিলেন কিন্তু কংগ্রেস এখনও করছি-করব, হচ্ছে-হবে মানসিকতা নিয়ে পড়ে রয়েছে। তাই আর কালবিলম্ব না করাই উচিত।কয়েকদিন আগেই বিজেপি-বিরোধী দলগুলির মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে চিঠি লিখে একজোট হওযার আহ্বান জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি প্রস্তাব দেন, ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনের লক্ষ্য এখন থেকেই জোটবদ্ধ হতে হবে। তাই এখন থেকেই আলোচনা শুরুর প্রয়োজন। এপ্রিলে দিল্লি যাওয়ার কথা মমতার, সেখানে তিনি বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দেন।এর আগে মহারাষ্ট্রে গিয়ে শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত ও শিবসেনা বিধায়ক আদিত্য ঠাকরের সঙ্গে বৈঠক করে আসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতার জোট প্রস্তাব কার্যত খারিজ করে দেন শিবসেনা মুখপাত্র। তিনি বলেন, কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে জোটে তাঁর সায় নেই কিন্তু সেই সঞ্জয় রাউতই এখন বলছেন কিন্তু সেই সঞ্জয় রাউতই এখন বলছেন, মমতাকে নেতৃত্বে রেখেই জোট গঠনের কাজ শুরু করে দেওয়া উচিত

সঞ্জয়ের কথায়, কংগ্রেস যখন এগিয়ে আসছে না, তখন মমতার নেতৃত্বেই জোট গড়ে তুলতে হবে। এদিন শিবসেনার মুখপত্রের সম্পাদকীয়তে এই লেখা ভবিষ্যৎ রাজনীতির পক্ষে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কংগ্রেস সম্পর্কে শিবসেনার সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, কংগ্রেস দলীয় কোন্দল মেটাতেই ব্যস্ত ফলে তাঁরা বিজেপির বিরুদ্ধে জোটবদ্ধ লড়াই শুরু করতেই পারছে না তাই বাকিদেরই চেষ্টা করতে হবে।তিনি কংগ্রেস সম্পর্কে লিখেছেন,যে এট ঠিক কংগ্রেস কখনই বিরোধী ঐক্য তৈরিতে বাধা হবে না। পাশাপাশি বিজেপিকে নিশানা করে লেখা হয়েছে, নরেন্দ্র মোদীর দল কেন্দ্রের ক্ষমতায় থাকতে বিরোধীদের অধিকারে থাকা রাজ্যের সরকারগুলিকে কাজ করতে দিচ্ছে না। তাই দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো অটুট রাখতে বিজেপিকে হটাতে হবে কেন্দ্র থেকে। সম্পাদকীয়তে লেখা হয়েছে, বিজেপি প্রতিদিন নানা সমস্যা তৈরি করছে বিরোধীদের হাতে থাকা রাজ্যগুলিতে। তাই বিজেপির এই স্বেচ্ছাচারিতার জন্য অ-বিজেপি দলগুলিকে এক হতে হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে ডাক দিয়েছেন, সেই ডাকে সাড়া দিয়ে সমস্ত বিরোধী দলকে এগিয়ে আসতে হবে।শিবসেনার এই দাবিকে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ স্বাগত জানিয়েছেন। তিনিও বলেন বিজেপি বিরোধী জোট গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয়েছে কংগ্রেস। বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই দিতেও তারা ব্যর্থ,এই ব্যর্থতার পূর্ণ সুযোগ নিয়েছে বিজেপি। কংগ্রেসের ঘুরে দাঁড়ানোর কোনও সদিচ্ছাও চোখে পড়েনি তাই কংগ্রেসকে বাদ দিয়েই লড়াইয়ে নামতে হবে এখন। কংগ্রেসের শীত ঘুম ভাঙতে ভাঙতে রাত কাবার হয়ে যাবে।

কুণাল ঘোষ বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সাড়া দিয়ে কালবিলম্ব না করে সবার এগিয়ে আসাই উচিত বলে তৃণমূল মনে করে। শুধু জোট নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন এক মঞ্চে এসে নিয়মনীতি, স্টিয়ারিং কমিটি, যৌথ কর্মসূচি রেখে চলার কথা। সেটা বাকিদের মধ্যে প্রতিফলিত হচ্ছে। শিবসেনার বক্তব্যে তারই প্রতিফলন ফুটে উঠেছে। এই প্রতিফলন যত তাড়াতাড়ি বিরোধী অন্যান্য দলের মধ্যে সম্প্রসারিত হবে, ততই মঙ্গল।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar