Saturday, February 4, 2023
Homeখবর এখনযুদ্ধে নিরপেক্ষ থাকার ভারতে তেল এবং পেট্রোপণ্য রফতানি বাড়াচ্ছে রাশিয়া..

যুদ্ধে নিরপেক্ষ থাকার ভারতে তেল এবং পেট্রোপণ্য রফতানি বাড়াচ্ছে রাশিয়া..

 মুক্তিযোদ্ধাঃ-

রাশিয়া এবং ইউক্রেন যুদ্ধের ১৫ দিন পেরিয়ে গিয়েছে কিন্তু এখনও তা কমার কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। লাগাতার ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরেই চলছে শেলিং-মিসাইল হানা। ছবির মতো সুন্দর দেশ আজ ধংসের চেহারা নিয়েছে। তবে রাশিয়া এবং ইউক্রেনের যুদ্ধে আলোচনার বার্তা দিলেও কোনও পক্ষেই নেই ভারত।যা রাশিয়ার নজর কেড়েছে। যদিও ইতিমধ্যে একাধিক দেশ রাশিয়ার উপর বিভিন্ন ধরণের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এই অবস্থা ভারতের অবস্থান নিয়ে খুশি মস্কো! আর সেই পুরস্কার পেতে চলেছে ভারত?ভারতে আরও বেশি করে ব্যবসা বাড়াতে চায় রাশিয়া। আর তা নিয়েই রাশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আলেকজান্ডার নৌবাক পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদ্বীপ সিং পুরির সঙ্গে কথা বলেছেন। আর এই বৈঠকে একাধিক বিষয় উঠে আসে। যার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল ভারতের তেল এবং গ্যাস সেক্টর। আর এই দুই সেক্টরে কাজ করতে আগ্রহী রাশিয়া। আর সেজন্যে ভারতকে তেল-গ্যাস সেক্টরে বিনিয়োগের কথা বলেছে মস্কো।বলে রাখা প্রয়োজন ইতিমধ্যে রাশিয়ার তেল, গ্যাস এবং ইনার্জি আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আমেরিকা। পর্যবেক্ষকদের মতে, এই সিদ্ধান্ত সরাসরি মস্কোর অর্থনীতিতে আঘাত লাগবে। আর সেখানে এহেন পদক্ষেপ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।রাশিয়ান উপ-প্রধানমন্ত্রী ভারতকে গ্যাস বিনিয়োগ করার কথা জানিয়েছে। শুধু তাই নয়, Privileged State Partnership -এ আসার জন্যে আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে। অন্যদিকে ভারতেও রাশিয়া বিভিন্ন ধরণের পেট্রোলিয়াম সামগ্রি রফতানি করবে বলেও কেন্দ্রীয়মন্ত্রীকে জানানো হয়েছে। এমকি আলেকজন্ডার নৌবাক আগামিদিনে ভারত এবং রাশিয়া একসাথে নিউক্লিয়ার সেক্টরেও কাজ করবে বলে জানিয়েছেন।বিভিন্ন প্রজেক্ট দ্রুত শেষ করার কথাও জানানো হয়েছে। বলে রাখা প্রয়োজন Arctic LNG 2 এবং Sakhalin-1- এর মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ। নৌবাক জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে রাশিয়ার একাধিক সংস্থা ভারতে বিভিন্ন প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করছে।

 যেমন কয়লা, তেল, ন্যাচারাল গ্যাস উৎপাদন এবং ডিস্ট্রিবিউশনও রয়েছে। সেগুলি দ্রুত শেষ করা হবে বলে আশ্বাস। জানা গিয়েছে দুই দেশের আলোচনায় তেল, এনার্জি এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার বিষয়টি উঠে এসেছে। রাশিয়ান শিক্ষা ব্যবস্থাকে আরও ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হিয়েছে। আর সেই কারণে রাশিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে যাতে ভারতীয় ছাত্ররা পড়তে পারে সেই বিষয়টি আলোচনায় উঠে এসেছে বলে জানা যাচ্ছে। উল্লেখ্য, ইউক্রেন থেকে কয়েক হাজার পড়ুয়াকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। সেদিকে তাকিয়েই কি এই প্রস্তাব? জোর জল্পনা চলছে এবং আলোচনার টেবিলে বসেই সিদ্ধান্ত হবে বলে জানা যায়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar