Tuesday, January 31, 2023
Homeখবর এখন'দলের শৃঙ্খলা না মানতে পারলে দরজা খোলা আছে, দলের সাংগঠনিক সভায় চরম...

‘দলের শৃঙ্খলা না মানতে পারলে দরজা খোলা আছে, দলের সাংগঠনিক সভায় চরম হুসিঁয়ারী বার্তা নেত্রী মমতার..

 প্রতিনিধি মুক্তিযোদ্ধাঃ-

পুরভোটের পর সাংগঠনিক বৈঠকে দলের নেতা-নেত্রীদের এক প্রকার কড়া বার্তা দিলেন দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করেই মদন মিত্রকে কড়া বার্তা- মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন যাঁরা এখনও দল নিয়ে প্রকাশ্যে নানা কথা বলছেন তাঁদের জন্য দরজা খোলা রয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য পুরভোটের আগে হঠাৎকে দলের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন মদন মিত্র। যদিও মদন মিত্রর পুত্রবধূ মেঘনা মিত্রকে পুরভোটের টিকিট দিয়েছিল দল তিনি জয়ীও হয়েছেন।দলের সাংগঠনিক বৈঠকে মদন মিত্রকে কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তিনি কড়া বার্তা দিয়েছেন দলের নেতাদের দলের বিরুদ্ধে কোনও কথা প্রকাশ্য বললে। বা দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করতে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে। প্রথমে সতর্ক করবে তারপরে শোকজ করবে। আর তার পরেও যদিও একই কাজ তাঁরা করেন তাহলে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে। মদন মিত্রের নাম না করে কড়া বার্তা দিয়ে বলেছেন, কেউ জিতে মনে করবেন না দলকে অনেক কিছু দিয়ে দিয়েছি। প্রয়োজনে দলে থেকে বেরিয়ে যান দরজা খোলা রয়েছে।পুরভোটে টিকিট না পেয়ে অনেকেই নির্দল হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। তাঁদের বিরুদ্ধে আগেই কড়া ব্যবস্থা নিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। তাঁদের দল থেকে বরখাস্ত করা হয় অর্থাৎ দল থেকে বহিষ্কার করা হতে পারে। একাধিক জেলায় এটা করা হয়েছিল পুরভোটের আগে। পুরভোটে নির্দলরা অনেকেই জয়ী হয়েছেন কিন্তু তাঁদের বিষয়ে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী। দলের নেতাদের কোনও ভাবেই ফিরিয়ে নেওয়া হবে না বলে বার্তা দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী।দলের শৃঙ্খলা রক্ষা নিয়ে কড়া বার্তা দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন দল জিতলেও শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে সকলকে দলের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি গড়ে দিয়েছেন তিনি।

 সুব্রত বক্সি, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যরা নজরে রাখবে এই বিষয়ে। কোনও রকম দলের বিরুদ্ধাচারণ করলেও তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে তিনি যত বড় নেতাই হোন না কেন। এদিন নজরুল মঞ্চে দলের সাংগঠনিক বৈঠকে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী, দলে থেকেও কেন নির্দলদের সমর্থন করা হচ্ছে। এমন ৭-৮ জন নেতারা রয়েছেন। তাঁদের উপরে নজর রাখা হচ্ছে। এ ভাবে দল বিরোধী কাজ করলে তাঁজের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে প্রথমে অ্যালার্ট করা হবে, তারপর শোকজ করা হবে। আর দুবার শোকজ করা হলে সাসপেন্ড করা হবে। পঞ্চায়েক ভোটের আগে দলে শৃঙ্খলা রক্ষাকেই বেশি নজরে রাখতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar