Tuesday, January 31, 2023
HomeIndiaমালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে তাজা বোমা উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য, শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর

মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে তাজা বোমা উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য, শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর

 

মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে একটি আম বাগান থেকে বৃহস্পতিবার সকালে তাজা বোমা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকাজুড়ে। বিধানসভা নির্বাচনের আগে এলাকায় বোমা উদ্ধার হওয়ায় আতঙ্কে ভুগছে এলাকার বাসিন্দারা। পুলিশি তৎপরতায় মালদা থেকে আনা হয় বোম ডিসপোজাল ইউনিট। তারা পার্শ্ববর্তী ময়দানে এই বোমা গুলিকে নিষ্ক্রিয় করেছে বলে খবর।সূত্রের খবর বৃহস্পতিবার সকালে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার দৌলতপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ইলাম গ্রামের একটি আম বাগানে চারটি তাজা বোমা দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। সঙ্গে সঙ্গে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশে খবর দেওয়া হয়। ঘটনার খবর পেয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসির নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। খবর দেওয়া হয় ফায়ার ব্রিগেড ও জেলার বোম ডিসপোজাল ইউনিটকে। বোমা উদ্ধারের দুই ঘন্টা পরে জেলা থেকে বোম ডিসপোজাল ইউনিট এসে বোম গুলিকে নিষ্ক্রিয় করে।
এদিকে সকালবেলায় এলাকার বাগান থেকে চারটি বোমা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকায়। বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে এলাকায় অশান্তি পাকাবার উদ্দেশ্যে এই বোমা জড়ো করা হচ্ছিল কিনা এই বিষয়ে এলাকাবাসী প্রশ্ন তুলেছে।
এদিকে বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায় চারটি তাজা বোমা উদ্ধার হওয়ায় ইতিমধ্যে এলাকায় রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়েছে। জেলা বিজেপির দাবি এলাকার নির্বাচনের আগে এবং নির্বাচনের মধ্যে বুথ দখল, ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে শাসকদলের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এখন থেকে বিভিন্ন এলাকায় বোমা জড়ো করছে। যাতে করে সাধারণ মানুষ ভোট কেন্দ্রমুখী না হতে পারে এবং নিজেদের স্বাধীন মতামত না প্রয়োগ করতে পারে। প্রশাসনের উচিত বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা।
এদিকে জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি গত ১০ বছরে মমতা ব্যানার্জি নেতৃত্বে রাজ্যজুড়ে উন্নয়নের ধারা প্রবাহিত হয়েছে। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল আসনে মানুষের সমর্থন নিয়ে মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বে সরকার গড়বে তৃণমূল। তাই বিজেপি এখানে উত্তরপ্রদেশের মত ভোটের আগে সন্ত্রাস সৃষ্টি করে মানুষ কে ভয় দেখাতে চাইছে। তাই জন্য বিহার ঝাড়খন্ড থেকে বোমা আমদানি করছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ করছি। প্রশাসনকে সজাগ থাকার জন্য অনুরোধ করছি।
এ প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা অজয় গাঙ্গুলী বলেন মালদা জেলা এখন বারুদের স্তুপের উপর বাস করছে। বিভিন্ন জায়গায় ঘরে ঘরে শাসকদলের গুন্ডারা বোমা অস্ত্রশস্ত্র মজুদ করছে নির্বাচনে অশান্তি পাঠাবার জন্য। আমরা এই জন্য নির্বাচন কমিশন এবং কেন্দ্রীয় বাহিনীকে অনুরোধ করছি যাতে এগুলো তারা করা হাতে দমন করেন।
অন্যদিকে এই বোমা উদ্ধারের ঘটনা ঘিরে জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র শুভময় বসু সরাসরি বিজেপির দিকে আঙুল তুলেছেন। তার অভিযোগ নির্বাচনের প্রাক্কালে এলাকায় অশান্তি পাকাতে বিজেপি শাসিত রাজ্য ঝাড়খন্ড বিহার থেকে বিজেপির নেতারা মালদাতে সমাজবিরোধী ভাড়া করে নিয়ে আসছে। আর সঙ্গে সঙ্গে প্রচুর অস্ত্র মজুদ করছেন তারা। আমরা চাই পুলিশি হস্তক্ষেপে নির্বাচন কমিশন আরো সক্রিয় ভাবে সীমান্তে গুলি বন্ধ করুক।
এদিকে বোমা উদ্ধারের ঘটনায় নির্বাচনের প্রাক্কালে এলাকায় এলাকার বাসিন্দাদের মনে কিছুটা হলেও ভয় ভীতির সঞ্চার হয়েছে। নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে এ ধরনের কার্যকলাপ করা হাতে বন্ধ করা উচিত বলে মনে করছেন এলাকার বাসিন্দারা।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

Skip to toolbar